অনলাইন ক্লাসের সময় মোবাইল ফোনে আগুন

59

রয়েল নিউজ : অনলাইনে ক্লাস করছিল ৯ বছরের এক শিশু। তখনই হঠাৎ করে সেটিতে আগুন ধরে যায়। এমন ঘটনা ঘটেছে মালয়েশিয়ায়। জানা গেছে, স্থানীয় ইয়েস অ্যালটিটিউট থ্রি মোবাইল ফোনে আগুন ধরে যায়। জারিনগান প্রিহাতিন প্রোগ্রামের আওতায় এই মোবাইল ফোন ফ্রি দেয়া হয়েছিল। খবর মালয় মেইলের।

ওই শিশুর আন্টি সুরইয়ানি আব্দ গনি ফেসবুকে তার এই ভয়াবহ অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন। সেখানে তিনি পুরো দায় ইয়েস ফোনের ওপর চাপিয়েছেন। কারণ যে ফোনটিতে আগুন ধরে গেছে, সেটা মাত্র এক মাস আগেই হাতে পেয়েছিলেন তারা।
তিনি জানান, সকাল সাড়ে ৯টার দিকে গোম্বাকে তাদের বাড়িতে এই ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় বেশ ভয় পেয়ে যান তিনি। কিন্তু সৌভাগ্যক্রমে কেউই আহত হয়নি। ফেসবুক পোস্টে সুরইয়ানি লিখেন, সৌভাগ্যক্রমে ওই ঘটনার সময় আমি বাড়িতে ছিলাম।

পেশায় একজন কিন্ডারগার্টেন শিক্ষক সুরইয়ানি বলেন, ফ্রি ফোনগুলো গরম হয়ে যাওয়া এবং এগুলোর ব্যাটারির চার্জ তাড়াতাড়ি শেষ হয়ে যাওয়ার প্রবণতা রয়েছে। তিনি আরও বলেন, এগুলো ফ্রি দিলেও এমন কোনও ডিভাইস কাউকে দেয়া উচিত না। কারণ এগুলো বিপজ্জনক।

সম্প্রতি মালয়েশিয়ার পেরাক রাজ্যের সরকার ২০ হাজার ইয়েস অ্যালটিটিউট থ্রি মডেলের মোবাইল ফোন বিতরণ করেছে। কর্তৃপক্ষ বলছে, ফ্রি বিতরণের জন্য তারা ইচ্ছা করেই এ ধরনের নিম্নমানের মোবাইল ফোন দিচ্ছে, যাতে করে গেম খেলা না যায়।

রয়েল নিউজ/ এম আর ১৬ই জুন ২০২১

Previous articleআরও এক মাস বাড়ল চলমান বিধিনিষেধের মেয়াদ : মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপন
Next articleঈশ্বরদীতে বাস ও এ্যাম্বুলেন্সের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-১